শেরপুর কুশিয়ারা নদীতে নৌকাবাইচ অনুষ্ঠিত

বিজয়বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত অক্টোবর ৯, ২০২০
শেরপুর কুশিয়ারা নদীতে নৌকাবাইচ অনুষ্ঠিত

রকিব জিয়া,শেরপুর (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধিঃ ৮অক্টোবর বৃহস্পতিবার মৌলভীবাজার জেলার শেরপুরে কুশিয়ারা নদীতে নৌকাবাইচ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য কে ধরে রাখতে হামরকোনা হামরকোনা ব্রাহ্মণগ্রাম যুব সমাজ এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

যুবসমাজের আয়োজিত এ নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতার নান্দনিক রূপ, রস উপভোগে শামিল হন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুর রহমান দম্পতি।

নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতায় সিলেট বিভাগের ৪ জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে আসা ১৪টি নৌকা অংশগ্রহণ করে। নৌকাগুলো হচ্ছে নবীগঞ্জের সাজু ছোট বাখইড় গ্রামের শাহর তরী, সুনামগঞ্জের আলহাগদী গ্রামের সোনার বাংলা, সুনামগঞ্জের তিলক সাহারপাড়ার উড়াল পবন, বাগাউড়ার পঙ্খীরাজ, হবিগঞ্জের করিমপুর গ্রামের জয় পবন, সিলেটের শরিষপুর গ্রামের বাংলার তুফান, নবীগঞ্জের বাঘরাজ, ওসমানিনগরের বাংলার রকেট, মৌলভীবাজারের অন্তেহরির অজ্ঞান ঠাকুরের নৌকা, নবীগঞ্জের হালিতলা গ্রামের শাহজালালের তরীসহ ১৪টি নৌকা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে।

নান্দনিক এ নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ান হয় সাজু শাহর তরী, এবং রানার্স আপ হয় সোনার বাংলা তরী এবং তৃতীয় স্থান অধিকার করে উড়াল পবন নামের নৌকা।

নৌকাবাইচ পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে বিজয়ী কে একটি ফ্রিজ ও নগদ পঁচিশ হাজার টাকা রানার্স আপ ও তৃতীয় স্থান অর্জনকারী নৌকার মালিক কে একটি করে ২৪ ইঞ্চি এলিডি টিভি পুরষ্কার দেওয়া হয়।

নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ আতিকুর ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ কামাল হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরীফুল ইসলাম, ১নং খলিলপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান অরবিন্দ পোদ্দার বাচ্চু, যুক্তরাজ্য প্রবাসী জাবেদ আহমদ রনি, স্থানীয় আ’লীগ নেতা আব্দুল হাকিম, অলিউর রহমান, আশরাফ আলী প্রমুখ।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন- গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যের ধারা বহনকারী নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা সহ বিভিন্ন লোকজ সংস্কৃতি চর্চা ছাড়া বাঙ্গালির অতীত ঐতিহ্যকে ধরে রাখা যাবে না। নৌকাবাইচের মতো প্রতিযোগিতা যারা আয়োজন করতে পারে তারা কখনও মাদকাসক্ত হতে পারে না।

তিনি আরও বলেন নৌকার ইঞ্জিন একটি শুধু সামনে দিয়ে এগিয়ে যায়। আর বাংলাদেশ আ’লীগের মার্কা নৌকা। শেখ হাসিনার নৌকাও উন্নয়নে এগিয়ে চলেছে।

মেয়র আতিকুল ইসলাম ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে চ্যাম্পিয়ান নৌকাকে ২৫ হাজার, রানার্স আপকে ১৫ হাজার ও তৃতীয় স্থান অধিকারীকে ১০ হাজার টাকা উপহার দেন।

বিজয় বাংলা/এস.সি/২০২০