নবগঠিত পৌরসভায় অন্তর্ভুক্ত করার দাবিতে বিশ্বনাথে মানববন্ধন

বিজয়বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত নভেম্বর ১৯, ২০২০
নবগঠিত পৌরসভায় অন্তর্ভুক্ত করার দাবিতে বিশ্বনাথে মানববন্ধন

বিশ্বনাথ প্রতিনিধিঃ
বিশ্বনাথ উপজেলার সদর ইউনিয়নের ৪, ৫, ৬ ও ৮ নং ওয়ার্ডের ৩২টি গ্রাম নবগঠিত ‘বিশ্বনাথ পৌরসভা’য় অন্তর্ভুক্ত না হওয়ায় গ্রামগুলোর বাসিন্দাদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। ওই ৩২টি গ্রামকে পৌরসভায় অন্তর্ভুক্ত করা না হলে কঠোর আন্দোলনে নামার ঘোষণা দিয়েছেন তারা। বুধবার সকাল ১১টায় উপজেলা সদরের বাসিয়া সেতুর উপর মানববন্ধন কর্মসূচি করে তারা এই ঘোষণা দেন।

বিশ্বনাথ পৌরসভায় অন্তর্ভুক্তির দাবির আন্দোলনের সমন্বয়ক শেখ মো. আজাদের সভাপতিত্বে সাহিদুল ইসলাম সাহিদ ও সাংবাদিক মোসাদ্দিক হোসেন সাজুলের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তারা আরো বলেন, ‘নবগঠিত বিশ্বনাথ পৌরসভার যে গেজেট প্রকাশ করা হয়েছে, তা অনতিবিলম্বে প্রত্যাহার করে সদর ইউনিয়নের ৪, ৫, ৬ ও ৮নং ওয়ার্ডকে অন্তর্ভুক্ত করে নতুন করে গেজেট প্রকাশ করতে হবে। তা না হলে, আইনের আশ্রয় নেয়ার পাশাপাশি কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে দাবি আদায় করা হবে।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন শাহ আসাদুজ্জামান আসাদ, সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, মহব্বত আলী, আলতাব হোসেন, শানুর আলী জয়দু, শাহনেওয়াজ চৌধুরী সেলিম মেম্বার, আবদুল মোমিন মামুন মেম্বার, শামীম আহমদ মেম্বার, বিভাংশু গুণ বিভু, আসাদুজ্জামান নুর আসাদ, আমির আলী, ফজলুর রহমান, মনোহর হোসেন মুন্না, ফজলু মিয়া, টিপু আলী, নাজিম উদ্দিন রাহিম, বাদশা মিয়া, আতিকুর রহমান, রুজেল আহমদ চৌধুরী, নেছার আহমদ মুজিব প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, উপজেলা সদরের সন্নিকটের গ্রামগুলোকে বাদ দিয়ে অন্য ইউনিয়নের ৫ কিলোমিটার দূরের গ্রামগুলোকে পৌরসভায় অর্ন্তভূক্তি করা হয়েছে। যা নিতান্তই একটি পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র ও দু:খজনক ঘটনা। এটা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায়না। তারা বলেন, অনতি বিলম্বে সদর ইউনিয়নের ৪, ৫, ৬ ও ৮নং ওয়ার্ডের গ্রামগুলোকে পৌরসভায় অর্ন্তভূক্তি করে পৌরসভার কার্যক্রম শুরু করতে হবে। তা না হলে আইনি লড়াইসহ এ এলাকার সকলকে নিয়ে কঠোর আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে বলে হুশিয়ারী দেন তারা।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ফারুক মিয়া, মোহাম্মদপুর গ্রামের মাসুক মিয়া, কল্যাণভাটের হালিম শিকদার, সাবসেনের মাসুক মিয়া, নতুন সিরাজপুরের কবির আহমদ, উত্তর ধর্মদার মাওলানা শেখ শাহিদুর রহমান, সরুয়ালার আব্দুর রূপ, সিরাজপুরের আনছার আলী, রজকপুরের ইলিয়াস আলী, পুরান সিরাজপুরের মকরম আলী, আব্দুল হান্নান, বাওনপুরের আয়ুব আলী বারী। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, ইলিমপুর গ্রামের শেখ ফজর রহমান, হিমিদপুরের হাজী শাহেদ মিয়া, ফজলুর রহমান শিপন, মুহিব উদ্দিন সুজেদ, সাজ্জাদ আলী, উত্তর ধর্মদার শেখ সালাউদ্দিন, শেখ শিপন আহমদ, বাওনপুরের আতিক আহমদ, তাতিকোনার আবুল বাশার, তানভীর আহমদ, রাজ মোহাম্মদপুরের মনির আহমদ, তাজুল ইসলাম, ফরহাদ মিয়া, ধর্মদার নজরুল ইসলাম, রজকপুরের আতিকুর রহমান মুরাদ, শাহান মিয়া, আতাপুরের আবুল কালাম, আব্দুল ওদুদ, আব্দুস শহীদ, নানু মিয়া, কাইয়া কাইড়’র আব্দুল আহাদ রকন, ধীতপুরের সৈয়দ হোসেন, সরুয়ালার আব্দুর রূপ, ইমরুজ আহমদ, পশ্চিম শ্বাসরামের লাল মিয়াসহ ৪টি ওয়ার্ডের সর্বস্থরের জনগন।

বিজয় বাংলা/এইচ/২০২০