আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. এর নামে হত্যার মিথ্যা মামলা নিয়ে তদন্তের জন্য হাটহাজারী মাদরাসায় পিবিআই..

বিজয়বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত জানুয়ারি ১২, ২০২১
আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. এর নামে হত্যার মিথ্যা মামলা নিয়ে তদন্তের জন্য হাটহাজারী মাদরাসায় পিবিআই..

স্টাফ রিপোর্টার |

হাটহাজারী মাদরাসায় PBI সদস্যরা এসেছেন তদন্ত করতে। আল্লামা শাহ আহমদ শফী সাহেব রহ, এর পরিবার ও কওমী অঙ্গনের বিতর্কিত কিছু ব্যক্তি বিশেষের করা মিথ্যা মামলার তদন্ত চলছে। PBI সদস্যদের সাথে ছিলেন পুলিশ, গোয়েন্দা কর্মকর্তা ও মিডিয়া কর্মিরা। PBI সদস্যরা তাদের মতো তদন্ত করেছেন। নানান জনের মতামত নিয়েছেন। কিছু জায়গাও পরিদর্শন করেছেন। আল্লামা জুনাঈদ বাবুনগরী সাহেবের সাথেও কথা বলেছেন। হাটহাজারী মাদরাসার ছাত্র অভ্যুত্থান সহ আল্লামা শাহ আহমদ শফী সাহেব রহ, মৃত্যু ইত্যাদি বিষয় নিয়ে জামিয়ার শিক্ষকমণ্ডলী সহ নানানজনের মতামত নিয়েছেন। সবশেষে আল্লামা জুনাঈদ বাবুনগরী সাহেব যখন নিজ রুমের দিকে যাচ্ছিলেন হুইল চেয়ারে করে ঠিক তখন PBI এর কিছু সদস্য বাবুনগরী সাহেবের সাথে সাক্ষাতে এগিয়ে আসলেন। হাত বাড়িয়ে মোসাফাহা করলেন সবাই।

মোসাফাহা শেষে একজন বললেন, ‘হুজুর অনেকদিন ধরে আপনার সাক্ষাতে আসতে চাচ্ছিলাম। কিন্তু সুযোগ হয়নি। তদন্তে এসে সেই সুযোগটা পেয়ে গেলাম। আলহামদুলিল্লাহ।’ আরেকজন বললেন, হুজুর আমার জন্য দোয়া করবেন। এভাবে প্রত্যেকে সালাম মোসাফাহা করে দোয়া নিলেন। সংক্ষেপে মতবিনিময় করলেন। সবাই নিজেদের পরিচয় দিলেন। অবশেষে বাবুনগরী সাহেব তাদেরকে আন্তরিকতার সাথে খানাপিনার দাওয়াত দিলেন। তারা এতে আরো খুশি হলেন। যখন তারা বাবুনগরী সাহেবের সাথে কথা বলছিলেন তখন তাদের অত্যন্ত নমনীয় দেখলাম। হুজুরের সাথে সাক্ষাৎ করতে পেরে তারা পুলক অনুভব করলেন। বিদায়ের ঠিক আগমুহূর্তে স্মৃতি স্বরুপ তারা বাবুনগরী সাহেবের সাথে ছবিও ওঠালেন খুশি মনে। হ্যাঁ, এটাই বাংলাদেশ। এদেশের সর্বস্তরের মানুষ আলেমদের সম্মান করেন৷ ভালোবাসেন।

শত চেষ্টা করেও প্রকৃত আলেমদের সম্মান রোখা যাবে না।