জয়ের বিকল্প ভাবছে না বাংলাদেশ অনুশীলনে জামাল ভূঁইয়া

বিজয়বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত ২৩, মার্চ, ২০২১, মঙ্গলবার
জয়ের বিকল্প ভাবছে না বাংলাদেশ অনুশীলনে জামাল ভূঁইয়া

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ মার্চ, ২০২১, ৬:১৯ এএম

নেপালে ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে কিরগিজস্তান অনূর্ধ্ব-২৩ দলের বিপক্ষে জয়ের বিকল্প ভাবছে না বাংলাদেশ জাতীয় দল। মঙ্গলবার মুখোমুখি হচ্ছে দু’দল। কাঠমান্ডুর দশরথ রঙ্গশালা স্টেডিয়ামে এদিন স্থানীয় সময় বিকাল সাড়ে ৫টায় শুরু হবে ম্যাচটি। কাঠমান্ডু থেকে সোমবার বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার মো. ইকবাল হোসেন জানান, টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্য নিয়েই নেপাল এসেছে জাতীয় দল। প্রথম ম্যাচে কিরগিজস্তানকে হারিয়ে লক্ষ্যপূরণে এগিয়ে যেতে চায় লাল-সবুজরা। দলের ব্রিটিশ প্রধান কোচ জেমি ডে’র আশা জয় দিয়েই টুর্নামেন্ট শুরু করবে বাংলাদেশ। শিরোপা জিততে তিনি প্রথম ম্যাচে জয়ের বিকল্প ভাবছেন না। শুধু তাই নয়, প্রথম ম্যাচ জিতে পরের ম্যাচে স্বাগতিক নেপালের বিপক্ষেও দলের সেরা পারফরমেন্স আশা করছেন কোচ। জেমির ইচ্ছা এই টুর্নামেন্টের মধ্যদিয়েই বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে বাকি তিন ম্যাচের প্রস্তুতি ভালোভাবে সেরে নেবে তার দল।

এদিকে সোমবার দুপুরে ঢাকা থেকে রওয়ানা হয়ে কাঠমান্ডুতে পৌঁছেন জাতীয় দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। সেখানে তার করোনাভাইরাস পরীক্ষা করতে হয়নি। কাঠমান্ডু পৌঁছেই দলের সঙ্গে অনুশীলনে যোগ দেন জামাল। ম্যাচ ভেন্যূ দশরথ স্টেডিয়ামে স্থানীয় সময় বিকাল ৪টা থেকেত ৫টা পর্যন্ত অনুশীলন করেন জাতীয় দলের ফুটবলাররা। অধিনায়ক যোগ দেয়ায় পূর্ণতা পেয়েছে জেমি ডে’র দলে। এদিনই অনুশীলন শেষে ২৪ সদস্য থেকে একজন কমিয়ে ২৩ জনের দল ঘোষণা করেন কোচ জেমি। যেখানে বাংলাদেশ পুলিশ দলের মো. জুয়েলকে বাদ দিয়েছেন তিনি।

টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে নতুন অধিনায়ক পাচ্ছে বাংলাদেশ দল, কাঠমান্ডু থেকে এমন আভাসই দিয়েছেন টিম ম্যানেজমেন্টের এক সদস্য। জামাল দলের সঙ্গে যোগ দিলেও কিরগিজস্তানের বিপক্ষে তার প্রথম একাদশে থাকা নিশ্চিত নয় বলে জানান তিনি। আর এ কারণেই মিডফিল্ডার সোহেল রানাকে অধিনায়কত্ব করার জন্য নাকি মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকতে বলেছেন কোচ জেমি ডে। জামালকে বিশ্রাম দিতেই তাকে প্রথম একাদশে না খেলানোর সিদ্ধান্ত কোচের।

নেপালের ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টে জাতীয় দলকে উৎসাহ দিতে সোমবার কাঠমান্ডু গেছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন। কয়েকদিন আগে তিনি বলেছিলেন, এখন থেকে জাতীয় দলের সব ম্যাচ দেখবেন, খেলা দেশে হোক কিংবা বিদেশে। ঘোষণা অনুযায়ী বাফুফে বস বাংলাদেশের খেলা দেখতে ছোটখাটো একটি বহর নিয়েই ঢাকা থেকে কাঠমান্ডু উড়ে যান। তার সফরসঙ্গী হয়েছেন বাফুফের সাধারণ সম্পাদক মো. আবু নাইম সোহাগ, সদস্য মাহফুজা আক্তার কিরণ, নুরুল ইসলাম নুরু, ইমতিয়াজ হামিদ সবুজ এবং ডেভেলপমেন্ট কমিটির সদস্য সৈয়দ রিয়াজুল করিম। একই দিনে জাতীয় দৈনিক পত্রিকা, টেলিভিশন এবং অনলাইন মিডিয়ার ১৯ জন সাংবাদিকও টুর্নামেন্ট কাভার করতে নেপাল গিয়েছেন।

আয়োজক অল নেপাল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (আনফা) কালই টুর্নামেন্টের প্রাইজমানি ঘোষণা করেছে। তাদের ঘোষণা অনুযায়ী চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ৫ হাজার মার্কিন ডলার, রানার্সআপ দলের জন্য থাকছে ৩ হাজার মার্কিন ডলার। টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় পাবেন ৫০০ মার্কিন ডলার এবং প্রতি ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়ের জন্য পুরস্কার থাকছে ২৫০ মার্কিন ডলার করে। বাংলাদেশ তাদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে ২৭ মার্চ স্বাগতিক নেপালের বিপক্ষে।

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন