কোভিড ভ্যারিয়েন্টের নাম হবে হবে আলফা, বেটা আর ডেল্টা

বিজয়বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত ১, জুন, ২০২১, মঙ্গলবার
কোভিড ভ্যারিয়েন্টের নাম হবে হবে আলফা, বেটা আর  ডেল্টা

অনলাইন ডেস্কঃ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনাভাইরাসের বিভিন্ন ভ্যারিয়েন্টের নামকরণের একটি নতুন পদ্ধতির ঘোষণা দিয়েছে।

ঘোষণা অনুযায়ী সংস্থাটি এখন থেকে যুক্তরাজ্য, দক্ষিণ আফ্রিকা কিংবা ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট বোঝাতে গ্রিক অক্ষর ব্যবহার করবে।

সে অনুযায়ী এখন থেকে যুক্তরাজ্য ভ্যারিয়েন্টের নাম হবে আলফা, দক্ষিণ আফ্রিকান ভ্যারিয়েন্টের নাম বেটা আর ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের নাম হবে ডেল্টা।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, এর ফলে এসব ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে আলোচনা সহজ হবে এবং নাম থেকে কিছুটা কলঙ্ক দুর করতে সহায়তা করবে।

করোনাভাইরাসের ভ্যারিয়েন্টগুলো এতদিন যেদেশে চিহ্নিত হয়েছিলো সে দেশের নামেই সেগুলোকে বলা হতো। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই প্রথমবার ভ্যারিয়েন্টগুলোর আনুষ্ঠানিক একটি নাম দিলো।

এর আগে গত অক্টোবরে বি.১.৬১৭.২ ভ্যারিয়েন্ট ভারতে চিহ্নিত হওয়ার পর এর প্রচলিত নাম হয়ে যায় ‘ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট’ যা নিয়ে এই মাসেই তীব্র সমালোচনা করেছে ভারত সরকার।

এখন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার টেকনিক্যাল হেড মারিয়া ভ্যান কারখভ টু্‌ইট করেছেন, “ভ্যারিয়েন্ট চিহ্নিতকরণ কিংবা রিপোর্টিংয়ের ক্ষেত্রে কোন দেশকেই কলঙ্কিত করা উচিৎ নয়”।

একই সাথে তিনি ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে ব্যাপক মনিটরিং এবং এর বিস্তার রোধে বৈজ্ঞানিক তথ্য উপাত্ত শেয়ার করার আহবান জানান।

ওদিকে ভ্যারিয়েন্টগুলোর নামের তালিকা ইতোমধ্যেই সংস্থার ওয়েবসাইটে দেয়া হয়েছে।

তবে এগুলো ভ্যারিয়েন্টগুলোর বৈজ্ঞানিক নামের স্থান নেবে না। আবার যদি ভ্যারিয়েন্টের সংখ্যা ২৪ পেরিয়ে যায় তাহলে গ্রিক অক্ষর আর দেয়া যাবে না। সেক্ষেত্রে নামকরণের নতুন পদ্ধতি ঘোষণা করবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

“আমরা বি.১.৬১৭.২ নাম পরিবর্তনের কথা বলছি না। কিন্তু চেষ্টা করছি যাতে সবাইকে আলোচনায় সহায়তা করা যায়। যাতে সহজে প্রকাশ্যে বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলা যায়,” বলছিলেন মারিয়া ভ্যান কারখভ।

সোমবার এক বিজ্ঞানী যুক্তরাজ্য সরকারকে সতর্ক করে বলেছে, দেশটি করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের প্রথম পর্যায়ে আছে যার কিছুটা আসতে পারে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট অর্থাৎ ডেল্টা থেকে।

করোনার এই ভ্যারিয়েন্টটি যুক্তরাজ্য ভ্যারিয়েন্ট অর্থাৎ আলফার চেয়ে দ্রুতগতিতে ছড়ায় বলে ধারণা করা হয়।

অন্যদিকে ভিয়েতনাম আবার এই দুই ধরণের সমন্বয়ে তৈরি হওয়া একটি ধরণ চিহ্নিত করার কথা জানিয়েছে।

দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন এটা বাতাসের মাধ্যমে দ্রুত ছড়াতে পারে এবং তিনি এটিকে ‘খুব বিপজ্জনক’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

বিজয়বাংলা/এনএম/১/৬/২১

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন