ছড়া – ইমামতি

বিজয়বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত ১, জুন, ২০২১, মঙ্গলবার
<strong>ছড়া – ইমামতি</strong>

কলমেঃ কাজী মারুফ।

“ইমাম মানে খুব অসহায়
নাই যে কোনো গতি,
তাইতো তারা পেট বাঁচাতে
করেন ইমামতি”!

এমন কথা যায় শোনা যায়
জ্ঞানপাপীদের মুখে,
ইমামগণ তো সুখেই আছেন
তোমরা আছো দুখে।

তোমাদের ন্যায় হারাম খাবার
যায় না তাদের পেটে,
ঘাম ঝরিয়ে হালালভাবে
কামাই করেন খেটে।

“কোনো ইমাম পায় না খেতে
না খেয়ে যায় মরে”
কেউ দেখাতে পারবে না তা
বলবো চ্যালেঞ্জ করে।

রবের ঘরের জিম্মাদারি
খুবই মহান পেশা!
নেই গতি আজ তোমাদেরই
তাই ধরেছো নেশা।

ঘুষ না খেলে দিন চলে না
শোনাও নীতির কথা,
সুদের টাকায় প্রাসাদ গড়ে
দেখাও মানবতা!

গরিব-দুঃখীর জায়গা-জমি
ভোগ করো নিজ নামে,
সুযোগমতো বিক্রি করো
অনেক চড়া দামে!

চুরির টাকায় হজ্জ করে দাও
নামের আগে হাজি,
তাইতো মানুষ আদর করে
ডাকে ভণ্ড-পাজি।

বউয়ের ঝাটার বাড়ি খেয়ে
ইমামকে দাও গালি,
রাগ দেখিয়ে বুঝাতে চাও
তুমিই শক্তিশালী।

ইমামদেরকে ধমক দিয়ে
খুব মজা পাও জানি,
মরার আগে সে মুখ দিয়ে
পারবে খেতে পানি?

সারাটিক্ষণ কথায়-কথায়
ইমামদের দোষ ধরো,
এর পরিণাম কেমন হবে
একটু চিন্তা করো!

ওলামাদের কষ্ট দিলে
আসবে না সুখ কারো,
এই কথাটা খাতার-পাতায়
লিখে রাখতে পারো।

তাদের থেকে শিক্ষাটা নাও
বৃদ্ধাশ্রমে যারা,
কতই ছিলো জোর-ক্ষমতা
আজ অসহায় তারা!

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন
  • 220
    Shares