শেখ মুজিবের কৃতিত্ব অস্বীকারের কিছু নেই: নজরুল ইসলাম

বিজয়বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত ৯, জুন, ২০২১, বুধবার
<strong>শেখ মুজিবের কৃতিত্ব অস্বীকারের কিছু নেই: নজরুল ইসলাম</strong>

ফাইল ছবি

বিজয় বাংলা অনলাইন : দেশ স্বাধীনে শেখ মুজিবুর রহমানের কৃতিত্ব সবচেয়ে বেশি বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, দেশ স্বাধীনে শেখ মুজিবুর রহমানের কৃতিত্ব সবচেয়ে বেশি, সত্য অস্বীকার করার কিছু নেই। তবে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছেন জিয়াউর রহমান। দেশের ইতিহাস থেকে তাকে বিচ্ছিন্ন করা যাবে না। বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী তাঁতী দল আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, একজন মানুষ দায়িত্ব তখনই নেন, যখন অবস্থা সংকটপূর্ণ থাকে। জিয়াউর রহমানের দায়িত্ব নিতে হয়েছে তখনই, যখন সংকট দেখা দিয়েছে। ১৯৭১ সালে যখন তিনি স্বাধীনতার ঘোষণা করেন, তখন দেশে কোনো সরকার ছিল না।

প্রস্তাবিত বাজেটের সমালোচনা করে বিএনপির এই নেতা বলেন, আওয়ামী লীগও যদি ভালো কাজ করে তার প্রশংসা হওয়া দরকার। এই যে বাজেট দিল, কেমনে তার প্রশংসা করি? অর্থনীতিবিদ দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেছেন- অর্থমন্ত্রী তার গাড়িতে যাত্রী উঠাতে ভুলে গেছেন। অর্থাৎ বাজেট নামক গাড়িতে গরিব মানুষ উঠাতে ভুলে গেছেন। বাজেটে যাদের জন্য ব্যবস্থা করা দরকার ছিল, সেই গরিব মানুষের কথাই ভুলে গেছেন অর্থমন্ত্রী। করোনার কারণে যারা বেকার হয়েছেন, কর্মহীন হয়েছেন- বাজেটে তাদের কিছু দেয়া হয়নি।

তিনি বলেন, গতবার বাজেট ছিল পাঁচ লাখ কোটি টাকার, এবার ছয় লাখ কোটি টাকা করা হয়েছে। শুধু বাজেটের পরিমাণ বাড়লে প্রশংসা করা যায় না।

নজরুল ইসলাম বলেন, দাবি করা হয় ডিজিটাল বাংলাদেশ। জাপান, সিঙ্গাপুর, কোরিয়া- এসব দেশ নিজেদের ডিজিটাল দেশ বলে দাবি করে না। এখানে ডিজিটালের কথা বলে প্রচুর টাকা কোথায় খরচ হয়ে যাচ্ছে- তা আল্লাহই জানেন।

Ad
সংগঠনের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে এতে বিএনপির সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মীর সরফত আলী সপু, আব্দুস সালাম আজাদ, মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম, তাঁতী দলের সদস্য সচিব মজিবুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন

সুত্র ; ইনকিলকব

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন