সংগঠনের সর্বস্তরের জনশক্তিকে কোভিড আক্রান্ত ব্যক্তি ও পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আহবান

বিজয়বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত ৫, জুলাই, ২০২১, সোমবার
<strong>সংগঠনের সর্বস্তরের জনশক্তিকে কোভিড আক্রান্ত ব্যক্তি ও পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আহবান</strong>

দেশে বিদ্যমান করোনা পরিস্থিতিতে সংগঠনের সর্বস্তরের জনশক্তিকে করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি ও পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা. শফিকুর রহমান ৫ জুলাই এক বিবৃতি প্রাদান করেছেন।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, “দেশে করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহ অবনতি ঘটেছে। প্রতিদিন ১০০ থেকে ১৫০ জন লোক মৃত্যুবরণ করছে এবং আক্রান্তের সংখ্যাও ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত ৪ জুলাই পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে ৯ লাখ ৪৪ হাজার ৯১৭ জন আক্রান্ত এবং ১৫ হাজার ৬৫ জন মারা গেছেন। হাসপাতাল গুলোতে মানুষ প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পাচ্ছে না। অক্সিজেনের অভাবে বিনা চিকিৎসায় মানুষ মারা যাচ্ছে।

করোনা ভাইরাস সম্পর্কে প্রচলিত বিভিন্ন বক্তব্য থাকলেও এটি মূলত আমাদের কৃতকর্মেরই ফল। মহান আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কুরআনে বলেন, ‘মানুষের কৃতকর্মের দরুন জলে-স্থলে অন্তরীক্ষে বিপর্যয়-বিশৃঙ্খলা দেখা দিয়েছে এবং এগুলো তাদেরই হাতের উপার্জন, মহান আল্লাহ অশুভ কর্মের কারণে তাদেরকে শাস্তির স্বাদ আস্বাদন করান, যেন তারা নিজেদেরকে সংশোধন করে আল্লাহর নির্দেশিত পথে ফিরে আসে।” (আর রূম-৪১)

অর্থাৎ এ পৃথিবীতে যত বিপদ-আপদ আপতিত হয় তা কেবল মানুষের কর্মফলের কারণেই হয়ে থাকে। তাই আমাদের উচিত হবে সকল পাপ-পঙ্কিলতা ও অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড পরিহার করে এক আল্লাহর দিকে ফিরে আসা এবং পরিপূর্ণভাবে তাঁর বিধান মেনে চলার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্ট চালানো। সেই সাথে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের কাছে এই কঠিন বিপদ থেকে মুক্তির জন্য বেশি বেশি দোয়া ও ইস্তিগফার করা।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের এই পরিস্থিতিতে দেশে নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে চরম খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষ ঘর থেকে বের হতে পারছেনা, কাজ করতে পারছেনা, তারা অর্ধাহারে-অনাহারে দিন কাটাচ্ছেন। আয় উপার্জন বন্ধ হয়ে তারা অত্যন্ত মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

গত ১ জুলাই থেকে দেশে কঠোর লকডাউন চলছে। জীবন-জীবিকার প্রয়োজনে অনেকেই রাস্তায় বের হতে বাধ্য হচ্ছেন। রাস্তায় বের হওয়া এসকল সাধারণ মানুষকে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বিভিন্নভাবে হয়রানি করছে। অনেককে গ্রেফতার আবার কাউকে জরিমানাসহ বিভিন্ন শাস্তি প্রদান করা হচ্ছে।

জনগণের দুঃখ-দুর্দশার কথা বিবেচনা করে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কর্তৃক প্রয়োজনের তাগিদে ঘর থেকে বের হওয়া সাধারণ মানুষকে হয়রানি বন্ধ করার জন্য সংশ্লিষ্ট মহলের প্রতি এবং করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি ও পরিবারের পাশে সাহায্য সহযোগিতা নিয়ে দাঁড়ানোর জন্য আমি সংগঠনের সর্বস্তরের জনশক্তির প্রতি আহবান জানাচ্ছি।”

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন