ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার স্বপ্নের ফাইনাল

বিজয়বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত ৮, জুলাই, ২০২১, বৃহস্পতিবার
<strong>ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার স্বপ্নের ফাইনাল</strong>

স্পোর্টস ডেস্ক | উত্তেজনা ও রোমাঞ্চকর মেসিফাইনালে কলম্বিয়াকে টাইব্রেকারে হারিয়ে কোপা আমেরিকার ফাইনালে পৌঁছেছে আর্জেন্টিনা। লা আলবিসেলেস্তেদের জয়ের নায়ক এমিলিয়ানো মার্তিনেস। গতকাল টাইব্রেকারে প্রতিপক্ষের তিনটি শট রুখে দেন এই অ্যাস্টন ভিলা গোলরক্ষক। তার আগে কোপার দ্বিতীয় সেমিফাইনালের ম্যাচটির নির্ধারিত সময় শেষ হয় ১-১ গোলে। আসরের নতুন নিয়ম অনুযায়ী অতিরিক্ত ৩০ মিনিটের খেলা না থাকায় ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। সেখানে আর্জেন্টিনাকে রুদ্ধশ্বাস জয় এনে দেন গোলরক্ষক মার্তিনেস।

এবার স্বপ্নের ফাইনালে হবে দক্ষিণ আফ্রিকার সুপার ক্ল্যাসিকো ব্রাজিল-আর্জেটিনার লড়াই, শিরোপার ধ্রুপদী লড়াই। দীর্ঘ ১৪ বছর পর দর্শকরা আবারও কোপার ফাইনালে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিলের লড়াই দেখবে। সর্বশেষ ২০১৬ কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠেছিল আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল। বাংলাদেশ সময় রোববার সকাল ৬টায় মারাকানার ফাইনালে স্বাগতিক ব্রাজিলের মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা।

কোপা আমেরিকার সর্বশেষ ২০১৯ আসরে পেরুকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ব্রাজিল। তবে এবার শেষ পর্যন্ত কার ঘরে উঠবে শিরোপা, তা না হয় সময়ই বলে দিবে। তবে রোমাঞ্চে ঠাসা ধ্রুপদী এক লড়াই দেখার অপেক্ষায় পুরো বিশ্ব।

ব্রাসিলিয়ায় সেমিফাইনালে কলম্বিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল আর্জেন্টিনা। ম্যাচের ৭ম মিনিটে মেসির পাস থেকে দলকে এগিয়ে নেন লাওরাতো মার্টিনেজ। নকআউট পর্বের ম্যাচের শুরুতেই এ রকম গোল বড় জয়ের আভাস দেয়। তবে শুরুতে পিছিয়ে পড়েও শেষ দিকে সমতায় ফিরে ম্যাটে রোমাঞ্চ ভরিয়ে তুলে কলম্বিয়া।

কলম্বিয়া সমতায় ফেরার পর আর্জেন্টিনার সহজ সুযোগ মিস। এরপরই পেনাল্টি শুটআউটে গড়ায় খেলা। সেখানে কলম্বিয়ার তিনটি পেনাল্টি আটকে আর্জেন্টিনার জাতীয় বীরে পরিণত হয়েছেন এমিলিয়ানো মার্টিনেজ।
পেরুর বিপক্ষে সেমিফাইনালে জিতে ব্রাজিলিয়ান সেনসেশন নেইমার জানিয়েছিলেন, ফাইনালে প্রতিপক্ষে হিসেবে আর্জেন্টিনাকে চান। এমিলিয়ানো মার্টিনেজের দুর্দান্ত পারফর্ম্যান্সে সেটাই হয়েছে। ১৪ বছর পর কোপা আমেরিকার ফাইনালে দেখা যাবে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ধ্রুপদী লড়াই।

শেষবার ২০০৭ সালে কোপার ফাইনালের মঞ্চে ব্রাজিলকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছিল আর্জেন্টিনা। সে ম্যাচে অবশ্য কোনো সুখস্মৃতি নেই আর্জেন্টিনার। রিকেয়লেম-মেসির আর্জেন্টিনা হেরেছিল ৩-০ ব্যবধানে। কোপা আমেরিকায় সর্বশেষ ২০১৯ সালে দুই দল মুখোমুখি হয়েছিল। সেবার ব্রাজিলের কাছেই হেরেই সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিল আর্জেন্টিনা।

সম্প্রতি কোপা আমেরিকায় সুপার ক্ল্যাসিকোতেও আর্জেন্টিনার কোনো সুখস্মৃতি নেই। আর্জেন্টিনার সর্বশেষ জয় ১৯৯১ সালে, সেবার ডিয়েগো ম্যারাডোনার জাদুতে ৩-২ গোলে জয় পেয়েছিল।
১৯৯১ আসরের পর দক্ষিণ আমেরিকার মঞ্চে ছয়বার হয়েছিল সুপার ক্ল্যাসিকো। একটিতেও জয় তুলে নিতে পারেনি আর্জেন্টিনা। এবার সেই শিরোপা খরা ঘোচাতে হলে করতে হবে রেকর্ড, ৩০ বছর জয়হীন থাকার রেকর্ড ভেঙেই জিততে হবে কোপা আমেরিকা।

তবে কোপায় শিরোপা জয়ের দিকে ব্রাজিলের চেয়ে বেশ এগিয়ে আলবিসেলেস্তেরা। দুটি বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনা এই আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ১৪ বার। অন্যদিকে ৫টি বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন সেলেকাওরা শিরোপা জিতেছে ৯ বার। মারাকানার ফাইনালে যদি ব্রাজিলকে হারাতে পারে তবে ১৫ শিরোপা নিয়ে শীর্ষে থাকা উরুগুয়েকে ছুঁয়ে ফেলবে আর্জেন্টিনা।

সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে মোট ১০৭ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে ব্রাজিল। সেলেসাওদের ৪৮ জয়ের বিপরীতে আর্জেন্টিনার জয় ৩৪ ম্যাচে। ড্র হয়েছে ২৫ ম্যাচ।
ব্রাজিল এবারের কোপায় ফাইনালে উঠেছে পেরুকে ১-০ গোলে হারিয়ে। গত আসরের ফাইনালেও একই দলকে হারিয়ে শিরোপা জেতে সেলেসাওরা।

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন